বাড়ির টবে পাতিলেবু(Lemon Tree) চাষের সহজ পদ্ধতি এবং টিপস

0
13
easy method of cultivating lemons in tubs
easy method of cultivating lemons in tubs (Image credit: facebook)

পাতিলেবু ছাড়া বাঙালি খাবার অসম্পূর্ণ। পাতিলেবু আমরা সারাদিন আলাদা আলাদা সময় আলাদা আলাদা রূপে খেয়ে থাকি, এই যেমন সকাল এ গরম জলে পাতিলেবু আর মধু মিশিয়ে, আবার প্রখর রোদ্রু থেকে আসে নুন চিনির সাথে লেবু, আবার খাবার সময় সালাদ পাতি লেবু, আর পাতিলেবু ছাড়া তো খাবারের স্বাদই বাড়েনা।

পাতিলেবু যে শুধু খাবারের স্বাদ বাড়ায় তেমনি কিন্তু নয়, পাতিলেবু তে আছে বিভিন্ন খ্যাদ গুন্। পাতিলেবু তে প্রচুর পরিমানে ‘vitamin C’ পাওয়াযায় যা আর অন্য কোনো ফলে পাওয়া যায় না। আমরাতো সবাই জানি ‘vitamin C’ আমাদের রোগ পতিরোদে সাহায্য করে, যা এই covid-19 আর সময় অত্যান্ত জরুরি। এছাড়াও গ্যাস-অম্বল আর পেট পরিষ্কারের জন পাতিলেবুর জুড়ি মেলা ভার। পাতিলেবু একমাত্র ফল যা সারা বছর কমবেশি পাওয়াযায়।

সুতরাং বাড়িতে যদি ২-৩ গাছ থাকে তাহলে লেবু নিয়ে আর চিন্তা থাকবে না। চলুন দেখেনি পাতিলেবু কিভাবে লাগাবো আর যত্ন করবো।

বাড়ির টবে পাতিলেবু(Lemon Tree) কি করা লাগবে

পাতিলেবু সারা বছরই চাষ করতে পারেন। তবে লেবু চাষ করার জন্য অগাস্ট(August) থেকে অক্টোবর(October) সব থেকে ভালো সময়, এই সময় চারা লাগালে ভালো ফল পোয়া যায়। পাতিলেবু লাগানো অত্যন্ত সহজ তেমন কোনো দক্ষতা দরকার হয় না। সামান্য কিছু পদ্ধতি বা কৌশল অনুসরণ করলেই পাবেন সারাবছর সমান ভাবে লেবুর ফলন, চলুন দেখে নেওয়া যাক কি ভাবে চাষ করবেন।

  • টবের আকার- বড় আকারের টবে(১২ ইঞ্চি) বা তার বড় টব ব্যবহার করতে পারলে ভালো হয়, তাহলে লেবুর ফলন বেশি হয় আর আকারেও বড় হয় লেবু।
  • মাটি তৈরী- দোআঁশ মাটি ও অম্লীয় মাটি পাতিলেবু চাষের জন্য উপযোগী। মাটি আমাদের এমন ভাবে তৈরী করতে হবে যাতে মাটি টি ফাঁপা থাকে। ১ ভাগ দোআঁশ মাটি, ৩ ভাগ গোবর সার বা বাড়ির কাটা সবজির খোসা সাথে ব্যবহৃত চা পাতা , অল্প সরিষার খৈল দিয়ে ১০দিন -১ মাস(১ মাস রাখতে পারলে ভালো) রেখে দিতে হবে। একদিন অন্তর মাতিটিকে ভালো করে খুঁচিয়ে দিতে হবে। মাটি তৈরী করার সময় মাথায় রাখতে হবে যাতে অতিরিক্ত জল কোনো ভাবেই গাছের গোড়ায় জমে না থাকে। তার জন্য ইটের টুকরো বা মাটির হাড়ির ভাংগা টুকরা টবের নিচে বিছিয়ে দিতে পারেন কারণ পাতিলেবু গাছে জল খুব কম প্রয়োজন।
  • চারা সংগ্রহ ও বসানো-  বিশ্বস্ত ও পরিচিত নার্সারি থেকে চারা সংগ্রহ করুন। চারা বসানোর আগে মাটি ভালো করে জল দিয়ে ভিজিয়ে নিন, তার পর টবের মাঝবরাবর গাছটিকে সোজা করে টবে লাগিয়ে দিন। হলুদ পাতা বা শুকনো দল যদি থাকে তাহলে ছেঁটে দিন। টব টি যদি রোদে থাকে তাহলে সরিয়ে ছায়াতে রেখে দিন।
  • জাল আর সার প্রয়োগ– লেবু গাছে জল খুব কম প্রয়োজন তাই সকাল সন্ধ্যা অল্প পরিমানে জলদিতে হবে। জল দেবার সময় মাথায় রাখতে হবে যাতে গাছের গোড়ায় জল জমে না থাকে। লেবু গাছে 20-30 দিন অন্তর অন্তর সার দিলে লেবুর ফলন বেশি হয় আর লেবুর আকার ও বড় হবে। সার হিসাবে গোবর সার দিতে পারেন, যদি গোবর সার না থাকে তাহলে সরিষার খৈল ভিজিয়েও গাছের গোড়ায় দিতে পারেন।
  • গাছের পরিচর্যা– সপ্তাহে একবার করে গাছের গোড়া খুঁচিয়ে দিন। লেবু গাছ কে 5-6 ঘন্টা হালকা রোদে রাখুন। গ্রীষ্ম কালে তিব্র রোদে না রাখাই ভালো। আর শীতকালে এমন কোনো দেয়ালের পশে রাখুন যাতে সূর্যের আলো প্রতিফলন হয়ে লেবু গাছে পরে। শীতকালে রোদ বেশি পেলে লেবু গাছের ফলন বাড়বে।

ভালো লাগলে অবশই লাইক, শেয়ার আর কমেন্ট করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here